সিলেটে পারিবারিক কলহের জের ধরে ৫ বছরের একটি শিশুকে সুরমা নদীতে ফেলে দিয়েছে তারই সৎমা। এ ঘটনায় সালমা বেগম নামে ওই নারীকে আটক করেছে পুলিশ।

আটক সালমা সিলেট শহরতলীর ফতেহপুর গ্রামের জিয়াউল হকের স্ত্রী। শুক্রবার বেলা আড়াইটার দিকে শহরতলীর কুমারগাঁও ব্রিজে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, ঘটনার পর শিশুকে উদ্ধারের চেষ্টা চালায় ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ। বিকাল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত তাকে খুঁজে পাওয়া যায়নি বলে যুগান্তরকে জানিয়েছেন সিলেট মহানগর পুলিশের জালালাবাদ থানার ওসি ওকিল উদ্দিন আহমদ।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জালালাবাদ থানার এএসআই সাইদুল ইসলাম জানান, পারিবারিক কলহের জের ধরে সতীনের পাঁচ বছর বয়সী মেয়ে মাহাকে নিয়ে কুমারগাঁও ব্রিজে আসে সালমা বেগম। পরে ব্রিজের উপর থেকে তাকে নদীতে ফেলে দেয়। এ দৃশ্য দেখতে পেয়ে উপস্থিত লোকজন তাকে আটক করে পুলিশে খবর দেন। সালমা বেগমও তিন সন্তানের জননী।

এএসআই সাইদুল ইসলাম আরও জানান, শিশুটিকে উদ্ধারের জন্য ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের ডুবুরি দলসহ অন্যরা অনেক চেষ্টা করলেও তাকে পাওয়া যায়নি। ধারণা করা হচ্ছে, শিশুটি স্রোতে ভেসে গেছে। আমরা পাশের থানাগুলোতেও শিশুটিকে খোঁজ করতে জানিয়ে দিয়েছি।